আজ বুধবার, ২২ অগাস্ট ২০১৮ ইং

কর্মমুখী রাজশাহী নগরীর আশায় লিটনকে সমর্থন নগরীর বেকারদের

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৭-২৩ ১৯:৩৭:৫৪

রাজশাহী একটি সম্ভাবনাময় শিল্পনগরী। রাজশাহী নগরীকে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে দেশের সর্ববৃহৎ রেশম শিল্প। শুধু রেশম শিল্প নয়, সম্ভাবনা রয়েছে কৃষি ও কুটির শিল্পের। দিনদিন যান্ত্রিকতার যুগে ধীরে ধীরে হারিয়ে যেতে বসেছে দেশের ঐতিহ্যবাহী এসব শিল্প। অন্যদিকে ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে কর্মক্ষেত্র সেভাবে বাড়ছে না। ফলে দিন দিন বাড়ছে বেকারত্ব। আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন তার ইশতেহারে বিশেষভাবে গুরুত্ব দিয়েছেন শিল্পের উন্নয়নের মাধ্যমে বেকারত্ব দূরীকরণে।

লিটন নগরীর সর্বত্র গ্যাস সংযোগ দেয়ার মাধ্যমে শিল্প কারখানার প্রসার, বিশেষ অর্থনৈতিক জোন প্রতিষ্ঠা ও বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক দ্রুত বাস্তবায়ন করে লক্ষাধিক মানুষের নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। রাজশাহীর জনগণ তার নির্বাচনী ইশতেহার ও প্রতিশ্রুতিতে আস্থা রাখছে। কারণ ২০০৮ সালে মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি নগরীর বিভিন্ন খাতে উন্নয়ন করেছিলেন। তিনি তৎকালীন নির্বাচনী ইশতেহার ও প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কাজ করেছিলেন বলেই তার ওপর নগরবাসীর এ আস্থা। কিন্তু ২০১৩ সালের নির্বাচনে বিএনপি জামায়াতের অপপ্রচার ও বুলবুলের চটকদার ইশতেহারের কাছে পরাজিত হন লিটন।

বুলবুল ক্ষমতায় আসার পর ইশতেহার ও প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কোনো কাজ করেননি। তিনি ব্যস্ত ছিলেন নিজের আখের গুছানোর জন্য। পাঁচ বছর উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত ছিল রাজশাহী নগরী। এর ফলেই নগরীতে বেড়েছিল বেকার সংখ্যা এবং পিছিয়ে পড়েছিল শিল্পায়ন থেকে।

লিটনের নির্বাচনী ইশতেহারের মাধ্যমে আবার নতুন করে আশার আলো দেখছে রাজশাহীবাসী। ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যাকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তুলে রাজশাহীর বেকারত্ব দূরীকরণে ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছে নগরবাসী। রাজশাহীর আম দেশে ও বিদেশে বেশ সুপরিচিত। শুধু আম নয় রাজশাহীতে উৎপাদিত কৃষি পণ্যেরও বেশ সুনাম রয়েছে দেশে ও বিদেশে। এই প্রেক্ষিতে রাজশাহীর কৃষি শিল্পকে উন্নত করার মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করার আশ্বাস দিয়েছেন লিটন। টমেটো, আলু প্রক্রিয়াজাতকরণ ও পাটশিল্পে কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে কুটির শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত ও সহায়তা করবেন লিটন।

রেশম শিল্প, কুটির শিল্প ও কৃষি শিল্পকে কেন্দ্র করে কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বেকারত্ব দূরীকরণের সাথে শিল্পেরও বিকাশ ঘটবে। লিটনের ইশতেহারে বিশেষ ভাবে গুরুত্ব পেয়েছে এই দিকটি। এজন্য নগরীর বেকার সমাজ আস্থা রাখছে লিটনের ওপর। তারা আশা করছে লিটনের হাত ধরেই আবার উন্নয়ন দেখবে রাজশাহীবাসী।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   এক মুরগির দাম যখন দেড় কোটি!
  •   পানি নিয়ে যুদ্ধ বেধে যেতে পারে পাকিস্তানে
  •   হেঁচকি বন্ধ করার কয়েকটি অব্যর্থ কৌশল
  •   পিতার কবরে পুত্রের প্রার্থনা
  •   গরু নিয়ে গুরুতর চিন্তা
  •   যৌনপল্লিতে ৪ জাপানি খেলোয়াড়, এশিয়ান গেমস থেকে বহিষ্কার
  •   সেই 'সেফুদা'র বিরুদ্ধে মামলা
  •   ইতিহাসের সবচেয়ে বিধ্বংসী ঝড় আঘাত হেনেছে বাংলাদেশে
  •   কাঁদলেন মির্জা ফখরুল
  •   যেভাবে আটক হলেন কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী 'কুত্তা মিলন'
  •   বড়লেখায় জমেছে ঈদের কেনাকাটা
  •   বড়লেখায় গরু বিক্রি না করেই হাট থেকে ফিরছেন ব্যবসায়ীরা
  •   শেষ সময়ে সিলেটে গরু ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত!
  •   চামড়া পাচার রোধে সিলেটে কড়া সতর্কতা
  •   পর্যটক বরণের অপেক্ষায় প্রকৃতিকন্যা সিলেট
  • সাম্প্রতিক রাজনীতি খবর

  •   কাঁদলেন মির্জা ফখরুল
  •   শুভেচ্ছা বিনিময়ের আড়ালে কোরবানি বাণিজ্যের হিসাব নিবেন মির্জা ফখরুলরা
  •   ভেস্তে গেল তারেকের শুভেচ্ছা বিনিময়ের আড়ালের ষড়যন্ত্র
  •   ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা: হাওয়া ভবনে ষড়যন্ত্র করেন তারেক রহমান
  •   রিজভীর নেতৃত্বে শ্যামলীতে বিএনপির ঝটিকা মিছিল
  •   বিএনপি থেকে ইতিবাচক সাড়া মেলেনি জাতীয় ঐক্যে
  •   ‘ন্যাড়া একবারই বেলতলায় যায়’, ফখরুলকে বি.চৌধুরী
  •   জাতি আজ আতঙ্কিত, মনে ঈদের আনন্দ নেই: রিজভী
  •   এবার নয়, সংলাপ হবে পরের নির্বাচন নিয়ে: কাদের
  •   বিএনপি ভোটে এলে আওয়ামী লীগের সঙ্গে থাকব
  •   চারিদিকে সরকার পতনের শব্দ: রিজভী
  •   দেশকে ‘স্বাধীন’ করুন: মির্জা ফখরুল
  •   ৮০ শতাংশ তৃণমূল নেতা চায় জামায়াত মুক্ত জোট
  •   ছয় মাসের জামিন পেলেন খালেদা জিয়া
  •   সরকারের পতন চাই, এটা কোনো গোপন কথা নয়: নজরুল