আজ রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ইং

তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকাডুবে অন্তত ৬৫ শরণার্থী নিহত

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৫-১১ ১২:৩২:০৯


সিলেটভিউ ডেস্ক :: ভূমধ্যসাগরে তিউনিশিয়া উপকূলে শরণার্থী বোঝাই একটি নৌকাডুবিতে অন্তত ৬৫ জন নিহত হয়েছেন। জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এই দুর্ঘটনার খবর জানানো হয়েছে।

জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এক বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়েছে, শুক্রবার ভূমধ্যসাগরে ওই নৌকাডুবির ঘটনায় আহত ১৬ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। বহু মানুষ হতাহত হতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

নৌকাডুবির ঘটনায় উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিরা বলছেন, বৃহস্পতিবার লিবিয়ার জুওয়ারা উপকূল থেকে যাত্রা শুরু করে শরাণার্থী বোঝাই নৌকাটি। কিন্তু যাত্রা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর থেকেই সাগরের জোরাল ঢেউয়ের কারণে সমস্যার সূত্রপাত।

ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, লিবিয়া থেকে ইউরোপের যাওয়ার জন্য ভূমধ্যাসাগরের ওই সমুদ্রপথে চলতি বছরের প্রথম চার মাসে নৌকাডুবির ঘটনায় ১৬৪ জন শরণার্থী প্রাণ হারিয়েছেন। তবে এবারের দুর্ঘটনাটিকে বছরের সবচেয়ে ভয়াবহ শরণার্থী নৌকাডুবির ঘটনা হিসেবে অভিহিত করছে সংস্থাটি।

নৌকাডুবির পর তিউনিশিয়ার নৌবাহিনী ১৬ জনকে উদ্ধার করে। ঘটনাস্থল থেকে মাত্র তিনটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজটি তীরে নিয়ে আসার অনুমতির অপেক্ষায় আছে তারা। দেশটির নৌবাহিনী উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে বলেও জানিয়েছে ইউএনএইচসিআর।

তিউনিশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়েছে, দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পরপরই নৌবাহিনীকে দ্রুত ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। সেখান থেকে একটি মাছ ধরা নৌকার সঙ্গে উদ্ধার অভিযান চালিয়ে কিছু জীবিত মানুষকে নিয়ে ফিরে আসে তারা।

ধারণা করা হচ্ছে, নৌকাটিতে যেসব শরণার্থী ছিলেন তাদের বেশিরভাগ আফ্রিকার সাব-সাহারা অঞ্চলের। ইউএনএইচসিআর বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘যারা ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেয়ার চেষ্টা করছে তাদের সবারই এরকম মর্মান্তিক ও ভয়াবহ বিপদের কথা মাথায় রাখা উচিত।’

চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে ভূমধ্যসাহর পাড়ি দিয়ে ১৫ হাজার ৯০০ অভিবাসী ও শরণার্থী ইউরোপে পৌঁছেছেন। গত বছরের প্রথম তিন মাসের তুলনায় অবশ্য এবার সংখ্যাটা ১৭ শতাংশ কম। জাতিসংঘের গত জানুয়ারিতে দেয়া হিসাব অনুযায়ী, ২০১৮ সালে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেয়ার সময় প্রতিদিন গড়ে ৬ জন প্রাণ হারান।

সৌজন্যে: জাগো নিউজ ২৪

সিলেটভিউ ২৪ডটকম/১১ মে ২০১৯/মিআচ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   রাজনগরে ভীমরুলের ভয়ে পিএসসি পরীক্ষার হলে তালা
  •   অবশেষে শাকিবহীন বুবলী
  •   মামলার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করবে মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড
  •   ছাতকে ফুটপাত দখলমুক্ত করতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান
  •   সমাপনী পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না আসমার
  •   সিলেটে গণদাবী পরিষদের আলোচনা-সভা অনুষ্ঠিত
  •   ‘পেঁয়াজের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চালের দামও বাড়াচ্ছে সিন্ডিকেট’
  •   সিলেটে অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের সভা অনুষ্ঠিত
  •   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে কেস কনফারেন্স সভা অনুষ্ঠিত
  •   এমসি কলেজের বাসের ‘ব্রেক ফেল’!
  •   দিনাজপুরে বাজারে নতুন পাতা পিয়াজ
  •   যুক্তরাজ্যের পোর্টসমাউথ সিটির সাথে সিসিকে চুক্তি স্বাক্ষর সম্পন্ন
  •   কমলগঞ্জে দুই পক্ষের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ায় আহত ১, থানায় অভিযোগ
  •   হবিগঞ্জে পেঁয়াজের অতিরিক্ত দামসহ বিভিন্ন অভিযোগে দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
  •   আলোচিত হলি আর্টিজান হামলা মামলার রায় ২৭ নভেম্বর
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   মামলার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করবে মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড
  •   ৫ দিনে দশ হাজার পাখির রহস্যজনক মৃত্যু
  •   মাদ্রিদে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা:) উদযাপিত
  •   রোহিঙ্গা হত্যায় আন্তর্জাতিক আদালতের তদন্ত প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের
  •   মুসলমানদের রাষ্ট্রহীন করতেই আসামের এনআরসি: মার্কিন প্রতিবেদন
  •   শ্রীলংকায় মুসলিম ভোটারদের গাড়িবহরে হামলা
  •   ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলার বিরুদ্ধে পাকিস্তানের প্রতিবাদ
  •   দেশের নিরাপত্তা নিয়ে সেনাপ্রধানের সঙ্গে ইমরানের বৈঠক
  •   রোহিঙ্গা সঙ্কট বিষয়ে জাতিসংঘে রেজুলেশন পাস
  •   ১৩ হাজার ফুট উচ্চতায় প্রাচীন শহরের খোঁজ
  •   তাজমহল বা কাশী-মথুরার মসজিদ কি অক্ষত থাকবে?
  •   সিদ্ধ তিনটি ডিমের দাম ১৯০০ টাকা, বিল দেখেই চোখ কপালে!
  •   বিয়ের মণ্ডপে কনস্টেবল ফিরিয়ে দিলেন ১১ লক্ষ টাকা পণ
  •   বাবরি মসজিদ মামলার রায়ে মমতা কেন নীরব?
  •   রোহিঙ্গা গণহত্যা নিয়ে সুচির বিরুদ্ধে প্রথম মামলা