আজ সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯ ইং

মোদির ভাগ্য নির্ধারণ হবে আজ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৫-১৯ ১২:৪০:১৩


সিলেটভিউ ডেস্ক :: ভারতের লোকসভা নির্বাচনে সপ্তম তথা শেষ দফার ভোট শুরু হয়েছে রোববার সকালে। দেশটিতে আজ সাতটি রাজ্য এবং একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মোট ৫৯টি লোকসভা আসনের ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থী নির্বাচিত করবেন। আজ ভাগ্য নির্ধারণ হবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির।

আজকের শেষ দফায় পঞ্জাব এবং হিমাচল প্রদেশের সব লোকসভা আসনের পাশাপাশি বিহার, ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশ, উত্তর প্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল চণ্ডীগড়ে ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

দক্ষিণ ভারতের রাজ্যগুলোতে সব লোকসভা আসনে ইতোমধ্যে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। তাই আজ শেষ দফার নির্বাচন শুধুই উত্তর, পশ্চিম, পূর্ব ও মধ্য ভারতের রাজ্যগুলোতে ভোট হবে। গত নির্বাচনে এই ৫৯টি আসনের ৩০টি জিতেছিল বিজেপি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উত্তর প্রদেশের বারাণসী আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পাশাপাশি সবার নজর থাকবে বিহারের পটনাসাহিব কেন্দ্রেও। সেখানে মুখোমুখি লড়াই হবে বিজেপির হেভিওয়েট প্রার্থী রবিশঙ্কর প্রসাদ এবং বিরোধী জোটের তারকা প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহার মধ্যে।

উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুরে যোগী আদিত্যনাথের ‘খাসতালুকে’ এবারের নির্বাচনে লড়ছেন ভোজপুরী সিনেমার তারকা রবি কিসান। পঞ্জাব থেকে লড়ছেন বলিউড তারকা সানি দেওল। পাঞ্জাবের গুরুদাসপুর কেন্দ্রে বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তিনি।

ভাটিন্ডা কেন্দ্রে লড়ছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং অকালি নেত্রী হরসিমরত কউর বাদল। হেভিওয়েট প্রার্থীদের লড়াই হবে চণ্ডীগড়েও। এখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা বিজেপির তারকা প্রার্থী কিরণ খের আর কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা পবনকুমার বনসালির মধ্যে।

সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও পরিস্থিতি বিবেচনায় ঝাড়খণ্ড, বিহার এবং উত্তরপ্রদেশের বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে বিকেল ৪টার মধ্যেই ভোটগ্রহণ শেষ হবে। তাছাড়া বেশিরভাগ আসনে ভোট আগেই শেষ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দেশটির সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হবে সন্ধ্যায়। দিল্লির ক্ষমতায় এবার কারা বসবে তার জন্য অবশ্য অপেক্ষা করতে হবে আরও তিনদিন। কেননা ভোট গণনা করে ফলাফল প্রকাশ করা হবে আগামী ২৩ মে বৃহস্পতিবার।

সৌজন্যে : জাগো নিউজ ২৪

সিলেটভিউ ২৪ডটকম/১৯ মে ২০১৯/মিআচ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে ডেভেলপার ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত
  •   ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে দারিদ্র্য শূন্যের কোটায় আসবে
  •   দক্ষিণ সুরমা থানা তালামীযের সভাপতি ফখরুল, সম্পাদক নজরুল
  •   'বিএনপিকে ক্রেন দিয়ে তুলে বিরোধী দলে বসানো অমঙ্গল'
  •   সিলেট শিক্ষা ট্রাস্টের বৃত্তি পেলো ৬১ জন মেধাবী শিক্ষার্থী
  •   গোলাপগঞ্জে ‘তথ্য আপা’র কার্যালয় উদ্বোধন
  •   দেশের মানুষ কষ্ট পেলে আমার বাবার আত্মা কষ্ট পাবে: প্রধানমন্ত্রী
  •   বড়লেখা পৌরসভায় উপ-নির্বাচনে কবির আহমদ বিজয়ী
  •   রহমত শাহকে ফিরিয়ে উদ্বোধনী জুটি ভাঙলেন সাকিব
  •   ট্রেন ‌দুর্ঘটনায় আহতদের পাশে সাবেক এমপি শফিক
  •   শ্রীমঙ্গলে চায়ের নিলামে সর্বোচ্চ দাম পেল মধুপুরের চা
  •   শিক্ষা সেবা সহজ করতে পদ্ধতিগত পরিবর্তন আনা হবে: শিক্ষামন্ত্রী
  •   'মধ্যপ্রাচ্যসহ সারা বিশ্বে সংকটের প্রধান কারণ যুক্তরাষ্ট্র'
  •   হবিগঞ্জ পৌর উপ-নির্বাচনে আ.লীগের মিজান জয়ী
  •   কুলাউড়ায় রেললাইন মেরামত, চললো ট্রায়াল ট্রেন
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   'মধ্যপ্রাচ্যসহ সারা বিশ্বে সংকটের প্রধান কারণ যুক্তরাষ্ট্র'
  •   'ট্রাম্পকে যুদ্ধের ফাঁদে ফেলে দিচ্ছিল বি-টিম'
  •   ফের আফগানিস্তানের তালেবানের সঙ্গে আলোচনায় বসছে যুক্তরাষ্ট্র
  •   ইরানকে উসকানি দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, বিশ্বযুদ্ধের আশঙ্কা: মাহাথির
  •   ঝড়ে ভারতের মন্দিরে প্যান্ডেল ভেঙে নিহত ১৪
  •   শ্রীলংকায় আরও এক মাস জরুরি অবস্থা
  •   ইরান-যুক্তরাষ্ট্র উত্তেজনা তুঙ্গে, ট্রাম্পের পাশে ইসরায়েল
  •   ট্রাম্প নয়, যুক্তরাষ্ট্রের মৃত্যুদণ্ড চাইল ইরানের সংসদ!
  •   ইরানকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়ার হুমকি দিলেন ট্রাম্প
  •   মার্কিন হুমকির দাঁত ভাঙা জবাব দেয়া হবে : ইরান
  •   তীব্র উত্তেজনা : ইরানের আকাশসীমা এড়িয়ে চলছে ভারতীয় বিমান
  •   ড্রোন ভূপাতিত হওয়ার পরদিনই সৌদি যুবরাজকে ট্রাম্পের ফোন
  •   ফিলিস্তিনিরা মুরসিকে কখনও ভুলবে না
  •   সংঘাত হলে ইরান ধ্বংস হয়ে যাবে: ট্রাম্পের হুঁশিয়ারি
  •   ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এবার সাংবাদিক ধর্ষণের অভিযোগ