আজ সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ ইং

ইয়েমেনে এক হচ্ছে সৌদি-আমিরাতপন্থীরা, কী করবে ইরান?

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১১-০৬ ১৯:৫৮:০১

সিলেটভিউ ডেস্ক :: দীর্ঘদিনের যুদ্ধ বন্ধে ইয়েমেনের সরকার ও বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তি হয়েছে।

মঙ্গলবার ইয়েমেনের পশ্চিমা সমর্থিত সরকার ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সমর্থিত দক্ষিণাঞ্চলীয় বিদ্রোহী গোষ্ঠী সাউদার্ন ট্রানজিশনাল কাউন্সিলের (এসটিসি) মধ্যে এ চুক্তি হয়।

রয়টার্স জানায়, সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে হওয়া এ চুক্তিতে সৌদি সমর্থিত আব্দে রাব্বি মনসুর আল হাদি সরকারকে এক মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ২৪ সদস্যবিশিষ্ট মন্ত্রিসভা গঠন করতে বলা হয়েছে।

আর এ মন্ত্রিসভা গঠনে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সমান অংশীদারিত্ব থাকবে। এসটিসি’র সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো থাকবে নতুন সরকারের স্বরাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে।

মাসখানেকেরও বেশি সময় ধরে দু’পক্ষের মধ্যে পরোক্ষ আলোচনা শেষে ক্ষমতা ভাগাভাগির এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হল।

টেলিভিশনে সম্প্রচারিত চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন, ‘আল্লাহর ইচ্ছায়, এই চুক্তি ইয়েমেনি গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে যুদ্ধ বন্ধ ও একটি রাজনৈতিক সমাধানে পৌঁছানোর বিস্তৃত আলোচনার দ্বার খুলে দিতে পারে।’

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্স শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান, ইয়েমেনের সৌদি ও পশ্চিমা সমর্থিত সরকার প্রধান হাদি ও এসটিসির নেতা আইদারুস আল জুবাইদি।

ইয়েমেনের ইরান সমর্থিত হুতিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এসটিসি ও হাদি সমর্থিত বাহিনী একসঙ্গেই ছিল। ২০১৫ সাল থেকে হুতিদের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া লড়াইয়ে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটে রয়েছে উভয় দলই। পরে দক্ষিণাঞ্চলের ক্ষমতা নিয়ে দ্বন্দ্বে উভয়পক্ষ একেঅপরের বিরুদ্ধে অস্ত্র ধরে। চুক্তির পথ মসৃন করতে গত মাসে আমিরাত সমর্থিত বাহিনী এডেন বন্দর ও এর আশপাশের এলাকা সৌদি নেতৃত্বাধীন বাহিনীর হাতে ছেড়ে দেয়।

২০১৪ সালে রাজধানী সানা দখলে নেয়ার পর আল হাদিকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করে হুতি বিদ্রোহীরা। তারপর থেকেই দেশের বাইরে তিনি।

হাদিকে ক্ষমতায় ফেরাতে ২০১৫ সালের জুনে ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে হামলা শুরু করে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। হুতিদের দমনে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় সৌদি ও আরব আমিরাত নেতৃত্বাধীন জোট ইয়েমেনে এখন পর্যন্ত অন্তত ১৮ হাজারবার বিমান হামলা পরিচালনা করেছে। চলতি বছরে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদসহ দেশটির আরও কয়েকটি শহরে ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালিয়েছে হুতিরা।


সৌজন্যে : যুগান্তর
সিলেটভিউ২৪ডটকম/৬ নভেম্বর ২০১৯/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেটে ৪৫ টাকায় পেঁয়াজ কিনতে লম্বা লাইন
  •   জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহেদ, বেলাল সম্পাদক
  •   সিলেট-গোয়াইনঘাট ও কোম্পানীগঞ্জ সড়কে বাস ধর্মঘট চলছে
  •   বিমান থেকে পিয়াজ নামাতে সরকারের ব্যাপক প্রস্তুতি
  •   স্পেন আ’লীগের সংবাদ বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন স্পেনের সাংবাদিকরা
  •   ১১ দিনেও খোঁজ মিলেনি স্কুলছাত্র পিয়ালের
  •   জুড়ীতে প্রাথমিকে ৫৮ ও ইবতেদায়ী সমাপনীতে ১৬জন অনুপস্থিত
  •   সিলেটে চারদিনে ২০ কোটি ছাড়িয়েছে কর আদায়
  •   সিলেট জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সোমবার
  •   ফেঞ্চুগঞ্জ আ.লীগের কমিটি অনুমোদনের আগেই অভিনন্দনের হিড়িক
  •   ব্রিটিশ এমপি হওয়ার স্বপ্নে বিভোর মৌলভীবাজারের বাবলিন
  •   সিলেট-ভোলাগঞ্জ সড়কে অনির্দিষ্টকালের বাস ধর্মঘট
  •   সিলেটে ৪৫ টাকা দরে বিক্রি হবে পেঁয়াজ!
  •   ব্যাংক কর্মকর্তা লোকমানের উপর হামলার প্রতিবাদে সভা
  •   সিলেট জেলা ও মহানগর আ.লীগের সম্মেলন হবে একইদিনে
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   মুসলিম ছাড়া অন্যদের নাগরিকত্ব দিতে ফের বিল আনছে বিজেপি
  •   মামলার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করবে মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড
  •   ৫ দিনে দশ হাজার পাখির রহস্যজনক মৃত্যু
  •   মাদ্রিদে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা:) উদযাপিত
  •   রোহিঙ্গা হত্যায় আন্তর্জাতিক আদালতের তদন্ত প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের
  •   মুসলমানদের রাষ্ট্রহীন করতেই আসামের এনআরসি: মার্কিন প্রতিবেদন
  •   শ্রীলংকায় মুসলিম ভোটারদের গাড়িবহরে হামলা
  •   ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলার বিরুদ্ধে পাকিস্তানের প্রতিবাদ
  •   দেশের নিরাপত্তা নিয়ে সেনাপ্রধানের সঙ্গে ইমরানের বৈঠক
  •   রোহিঙ্গা সঙ্কট বিষয়ে জাতিসংঘে রেজুলেশন পাস
  •   ১৩ হাজার ফুট উচ্চতায় প্রাচীন শহরের খোঁজ
  •   তাজমহল বা কাশী-মথুরার মসজিদ কি অক্ষত থাকবে?
  •   সিদ্ধ তিনটি ডিমের দাম ১৯০০ টাকা, বিল দেখেই চোখ কপালে!
  •   বিয়ের মণ্ডপে কনস্টেবল ফিরিয়ে দিলেন ১১ লক্ষ টাকা পণ
  •   বাবরি মসজিদ মামলার রায়ে মমতা কেন নীরব?