মুসলিমদের প্রতি বৈষম্য না করার আহ্বান ওবামার

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০১-১১ ১১:৫২:১০

টানা দুই মেয়াদে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট থাকার পর এবার বিদায়ের সময় এলো বারাক ওবামার। আর বিদায়ী ভাষণে বিশ্বের নানা সংকট ও বৈষম্য নিয়ে কথা বললেন শান্তিতে নোবেল বিজয়ী এ প্রেসিডেন্ট।

এসময় অভিবাসী প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মুসলিমদের প্রতি কোনো ধরনের বৈষম্যমূলক আচরণ  না করার আহ্বান জানিয়েছেন ওবামা। যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে এবং বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে দেয়া এক ভাষণে এ আহ্বান জানান তিনি।

এসময় তিনি নিজের আট বছর শাসনামলের সফলতার বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরে জলবায়ু পরিবর্তন, অর্থনৈতিক পরিস্থিতি পুনরুদ্ধার, কিউবার সঙ্গে সম্পর্ক পুনঃস্থাপন, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের বিষয়ে কথা বলেন।

যুক্তরাষ্ট্র আগের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী দাবি করে ওবামা বলেন, এবার ধন্যবাদ বলার পালা। আগামীর ইঙ্গিত করে এ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যু প্রত্যাখ্যান করা হবে আগামী প্রজন্মের জন্য প্রতারণা।

এছাড়াও বর্ণবাদ প্রসঙ্গে ওবামা বলেন, বর্ণবাদ যুক্তরাষ্ট্রের জন্য এখনো বড় সমস্যা। বর্ণবাদের বিরুদ্ধে সবার আরো অনেক কিছু করার আছে। তবে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠি (অভিবাসী) যুক্তরাষ্ট্রকে সমৃদ্ধ করেছে বলেও উল্লেখ করেন ওবামা।

এসময় নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে মসৃণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ওবামা। টানা দুইবার নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালনের পর আগামী ২০ জানুয়ারি নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন বারাক ওবামা। আট বছর প্রেসিডেন্ট হিসেবে হোয়াইট হাউজে দায়িত্ব পালনের পর আজ জাতির উদ্দেশে বিদায়ী ভাষণ দেন তিনি। ক্ষমতা হস্তান্তরের আগে এটাই তার শেষ ভাষণ।

প্রচণ্ড শীতের মধ্যে বিদায়ী প্রেসিডেন্টের এ ভাষণ শুনতে কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত হন। ওবামার একনিষ্ঠ ভক্তরা আগে থেকে প্রচণ্ড শীত উপেক্ষা করেও টিকিট সংগ্রহ করেছিলেন।

শিকাগো শহর থেকেই ওবামা ২০০৮ এবং ২০১২ সালের নির্বাচনের বিজয়ী ভাষণ দিয়েছিলেন। আজ সেখানেই তিনি বিদায়ী দিয়েছেন।

বিদায়ী ভাষণ দেয়ার সময় ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা, ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং তার স্ত্রী জিল বাইডেনও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। ভাষণ শেষে ওবামা পরিবার ভক্তদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   ২৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী রওনককে বৃহত্তর লামাপাড়াবাসীর সমর্থন
  •   গবাদি পশুর পাকস্থলীর বর্জ্য ও রক্ত থেকে বায়োগ্যাস উৎপাদন
  •   নর্থইস্ট বালাগঞ্জ কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন
  •   তীব্র সমালোচনার শিকার ব্রিটেনের হবু রাজবধূ
  •   বিশ্বের তৃতীয় পারমাণবিক ক্ষমতাধর দেশ হচ্ছে পাকিস্তান!
  •   যে কারণে ভাঙল ইমরান খানের তৃতীয় বিয়ে
  •   টরন্টোর গাড়ি হামলাকারী সেই যুবক 'নারী বিদ্বেষী'!
  •   নির্বাচনী ইশতেহারে বাংলাদেশের ছবি ব্যবহার করে বিতর্কে বিজেপি!
  •   যুক্তরাজ্য বিএনপিকে ক্ষমা চাইতে হবে
  •   সেলফিতে যে কারণে নাক বাঁকা বা থ্যাবড়া দেখায়!
  •   বিএনপির হাল ধরতে আসছেন কোকোর স্ত্রী!
  •   বজ্রপাত থেকে রক্ষা পাওয়ার ৯টি উপায়
  •   পুলিশের নারী কর্মকর্তার মানবিকতা
  •   সাবেক মিস আমেরিকা বিয়ে করলেন সমকামী তরুণীকে!
  •   রোগী চোট পেয়েছে মাথায়, অস্ত্রোপচার হল পায়ে!
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   তীব্র সমালোচনার শিকার ব্রিটেনের হবু রাজবধূ
  •   বিশ্বের তৃতীয় পারমাণবিক ক্ষমতাধর দেশ হচ্ছে পাকিস্তান!
  •   যে কারণে ভাঙল ইমরান খানের তৃতীয় বিয়ে
  •   টরন্টোর গাড়ি হামলাকারী সেই যুবক 'নারী বিদ্বেষী'!
  •   নির্বাচনী ইশতেহারে বাংলাদেশের ছবি ব্যবহার করে বিতর্কে বিজেপি!
  •   যৌন কেলেঙ্কারিতে জড়িয়েছে ‌যেসব গুরু’র নাম
  •   সৌদি আরবে চার দিনে আটক ১০ লাখ লোক
  •   মাকে সম্মান জানাতে ইন্দোনেশিয়ার স্কুলে অসাধারণ রীতি (ভিডিও)
  •   বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর সাবমেরিন এটি (ভিডিও)
  •   যেভাবে কিলিং মিশন চালায় মোসাদ!
  •   ৩৪ বছর পর ডায়ানাকে পুত্রবধূর অন্যরকম শ্রদ্ধা
  •   যেভাবে লক্ষ্যে আঘাত হানে ব্যালাস্টিক মিসাইল! (ভিডিও)
  •   আইএসের টার্গেটে ছিল সৌদি আরবও!
  •   ভয়ঙ্কর জঙ্গিদের 'শিকার' করেন এই নারী!
  •   মিয়ানমারে ভূমিকম্পের আঘাত