আজ বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ ইং

চয়ন হত্যায় তিনজনের ফাঁসি, সাতজনের যাবজ্জীবন করাদণ্ড

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-০৬-১৯ ১৩:২৯:৪৪

সিলেটভিউ ডেস্ক :: কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরের বাসিন্দা ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এরশাদুল হক চয়ন হত্যা মামলায় তিনজনকে ফাঁসি ও সাতজনকে যাবজ্জীবন করাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আব্দুর রহিম এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- হোসেনপুরের সিদলা গ্রামের আবদুল আউয়াল, আল আমিন ও সুফল মিয়া। এ তিনজনের মধ্যে আল আমিন ছাড়া অন্য দুজন পলাতক করয়েছেন। আর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন-সিদলা গ্রামের আব্দুল করিম, সাফিয়া খাতুন, আব্দুল কাদির, সোহেল মিয়া, রিপা আক্তার, জহুরা খাতুন ও আব্দুর রউফ ফকির। এদের মধ্যে সোহেল পলাতক রয়েছে।

আদালত সূত্র জানিয়েছে, পূর্ব শত্রুতা ও জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২০০৫ সালের ২ ডিসেম্বর কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর উপজেলার সিদলা ইউনিয়নের টান সিদলা গ্রামের জহিরুল ইসলাম রতনের ছেলে এরশাদুল ইসলাম চয়নকে হত্যা করে আসামিরা। এ ঘটনায় ওইদিন নিহতের বাবা বাদী হয়ে হোসেনপুর থানায় ১১ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। দীর্ঘ ১৪ বছর পর মামলাটির এ রায় ঘোষণা করা হয়। আসামিদের মধ্যে একজন এরই মধ্যে মারা গেছেন।

মামলার বাদী চয়নের বাবা জহিরুল ইসলাম রতন এ রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। তিনি জানান, তার ছেলে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করত। সে বাংলাদেশ রেলওয়েতে একটি চাকরি পেয়েছিল। ২০০৫ সালের ১ তারিখে বাড়ি আসে সে। পরদিন দুপুরে প্রতিপক্ষের লোকজন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তার মা ও বোনকে বাড়ির সামনে মারধর করতে থাকে। তাদের ডাকচিৎকার শুনে ঘর থেকে বের হলে তাকেও নৃশংসভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে হোসেনপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সৌজন্যে : কালের কণ্ঠ

সিলেটভিউ ২৪ডটকম/১৯ জুন ২০১৯/মিআচ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেটে হচ্ছে ক্যান্সারের ‘শেষ’ চিকিৎসা কেন্দ্র
  •   সিলেট জেলা রোভার স্কাউটসের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল সম্পন্ন
  •   মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির সাহিত্য সাংস্কৃতিক সপ্তাহ সমাপ্ত
  •   পাকা চুল কাঁচা করবে মেথি
  •   প্রকাশিত সংবাদের সাথে ফয়জুল হকের ভিন্নমত
  •   মোবাইল ফোনের নেশা কাটাবেন যেভাবে
  •   অপরাধ দমনে পুরস্কৃত এসএমপি’র ৭ পুলিশ সদস্য
  •   ১৭ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করল ভারতের সুপ্রিম কোর্ট
  •   সুনামগঞ্জে কুস্তি খেলা প্রতিযোগিতার আয়োজন
  •   একাকিত্ব হতে পারে মৃত্যুর কারণ, বলছে গবেষণা
  •   সিলেট চেম্বারের সাথে ফরেন এডুকেশন কনসালটেন্টস্’র মতবিনিময়
  •   দাঁতে ব্যথায় কাতর? জেনে নিন সমাধান
  •   সিলেটে ছাত্র ও যুব ফেডারেশনের বিতর্ক প্রতিযোগিতা শুক্রবার
  •   চুরি হওয়া স্বর্ণের চেইন আম্বরখানার ছামিয়া জুয়েলার্স থেকে উদ্ধার করলো পুলিশ
  •   দেশে জিডিপি বৃদ্ধি চার গুণ: মাহমুদ-উস-সামাদ এমপি
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   ডোবা থেকে নবজাতকের মরদেহ টেনে তুললো কুকুর
  •   ‘রোহিঙ্গা সমস্যা সৃষ্টিতে জিয়াউর রহমানের হাত রয়েছে’
  •   সরকারি কর্মচারীদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে, সংসদে প্রধানমন্ত্রী
  •   রূপপুর বালিশকাণ্ড: টেন্ডারের ৮ মাস আগেই আসবাবপত্র সরবরাহ
  •   ট্রেন দুর্ঘটনা: মা হারানো সেই শিশু মাহিমার দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী শামীম
  •   দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ১৪ হাজার ৯৭ কোটি টাকা
  •   নুসরাত হত্যায় দণ্ডপ্রাপ্ত আরও দুই আসামি কুমিল্লা কারাগারে
  •   ধাপে ধাপে জরিমানা নেবে ট্রাফিক পুলিশ
  •   প্রাথমিকের শিক্ষকদের জন্য সুখবর
  •   সরকারবিরোধী হলে ৩০ ডিসেম্বরের পরই আন্দোলনে নামতাম: ভিপি নুর
  •   আবরার হত্যার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী
  •   ‘বুকের মধ্যে জড়িয়ে ধরেও মেয়েকে বাঁচাতে পারিনি’
  •   'যে অভিযোগে শোভন-রাব্বানী বাদ, সেই অভিযোগে ভিসির অপসারণ নয় কেন'
  •   আশা করছি শিগগিরই আবরার হত্যার বিচার হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  •   আবরার হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেয় ১১ জন