আজ শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ ইং

স্বার্থ হাসিলে পরিবহন শ্রমিকদের উস্কে দেয়া হয়েছে: ভিপি নুর

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১১-২১ ১৭:৩৭:৫৭

সিলেটভিউ ডেস্ক :: নতুন পরিবহন আইনের প্রতিবাদে পরিবহন শ্রমিকদের ধর্মঘটে উসকানি রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর। তিনি বলেছেন, শ্রমিকদের আন্দোলন নি:সন্দেহে উসকানিমূলক। আপনারা জানেন যে, এই পরিবহন সেক্টরকে কারা উসকে দেয়। অনেকে নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য, সরকারকে একটা মেসেজ দেয়ার জন্য এই শ্রমিকদের রাস্তায় নামায়, সরকার যেন তাদের স্বার্থ পূরণ করে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ডাকসুর আয়োজনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে এক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

পরিবহন শ্রমিকদের আন্দোলনে সাধারণ মানুষের ভোগান্তির বিষয়টি তুলে ধরে নুর বলেন, আন্দোলন মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার। আমরা ছাত্ররা যখন নিরাপদ সড়ক আন্দোলন করেছি, আমরা তো কোনো গাড়ির গ্লাস ভেঙ্গে দিইনি। কারো মুখে মবিল, কালি মেখে দিইনি। তাহলে পরিবহন শ্রমিকরা কেন সাধারণ মানুষের মুখে মবিল মেখে দেবে? তাদের স্বার্থে আঘাত লাগলে তারা আন্দোলন করতে পারে কিন্তু সাধারণ মানুষের মুখে কালি মেখে দেবে এটা কেমন?

ডাকসু ভিপি নুর বলেন, রাস্তায় যে যানবাহন চলে সেগুলোর ৬০ ভাগ ফিটনেসবিহীন এবং ৪০ ভাগ লাইসেন্সবিহীন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিভাবক হিসাবে ডাকসুর পরিবহন সম্পাদককে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলার বাদী হতে তাগিদ দিয়ে ভিপি নুর বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের আঘাত করার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে আঘাত করার দুঃসাহস যেন আর কেউ না দেখায়।

পরে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন ফটক প্রদক্ষিণ করে তারা ভিসি বরাবর তারা একটি স্মারকলিপি দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডাকসুর ছাত্রকল্যাণ ও পরিবহন বিষয়ক সম্পাদক শামস ই নোমান, ডাকসু সদস্য তিলোত্তমা শিকদার প্রমুখ।

উল্লেখ্য, বুধবার পরিবহন শ্রমিকদের অঘোষিত ধর্মঘটে রাজধানীর সাইনবোর্ড এলাকা ও টঙ্গীতে ঢাবির দুটি বাসের গ্লাস ভাঙচুর করা হয়। বাসে থাকা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আপত্তিকর আচরণ করে শ্রমিকরা। এর প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছে শিক্ষার্থীরা।

সৌজন্যে :: যুগান্তর
সিলেটভিউ২৪ডটকম/২১ নভেম্বর ২০১৯/জিএসি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন