আজ মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং

হবিগঞ্জের ৫২ কিলোমিটার রেলপথের স্লিপারে নেই নাটবল্টু

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১২-০১ ১৪:৪৭:০৪

সিলেটভিউ ডেস্ক :: ঢাকা থেকে রেলপথে সিলেটের ৩১৯ কিলোমিটার পথের হবিগঞ্জ অংশের ৫২ কিলোমিটার রেললাইনের স্লিপারের নাটবল্টু খুলে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এছাড়া এই পথে ৮৪টি ব্রিজ রয়েছে, যার বেশিরভাগই ঝুঁকিপূর্ণ। তার ওপর স্লিপারের নাটবল্টু খোলা। ফলে যেকোনও সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। রেললাইন মেরামত করা কর্মচারীরা জানিয়েছেন, জনবল সংকটের কারণে কাজ করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের।

রেলওয়ে সূত্র মতে, ঢাকা-সিলেট রেললাইনের হবিগঞ্জের অংশের ৫২ কিলোমিটার রেললাইনে রয়েছে প্রায় ৮৪টি ব্রিজ ও কালভার্ট। এর অধিকাংশই ঝুঁকিপূর্ণ। আবার অনেক স্টেশনের অবস্থাও নাজুক রয়েছে। এছাড়া বেশ কয়েকটি রেল ক্রসিংয়ে গেট না থাকায় সাধারণ লোকজনকে ঝুঁকির মধ্যে পারাপার হতে হচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, দুর্বৃত্তরা নাটবল্টু খুলে নেওয়ায় বিকল্প হিসেবে নতুন নাটবল্টু লাগিয়ে ঝালাই দিচ্ছেন রেলের কর্মীরা, যাতে আর চুরি না হয়।

রেললাইন মেরামত করা কর্মচারীরা জানিয়েছেন, প্রয়োজনের তুলনায় তাদের জনবল অনেক কম। ফলে কাজ করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

রেলওয়ে কর্মচারী রফিক মিয়া বলেন, ‘আমাদের জনবল একেবারে কম। যেখানে মাঠ পর্যায়ে ২৪ কর্মচারী থাকার কথা, সেখানে রয়েছে মাত্র ৮ জন। জনবল না থাকায় অনেক সময় ঠিকভাবে কাজের তদারকি করা সম্ভব হয়নি। এরপরও আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করে যাচ্ছি রেলপথ সঠিকভাবে মেরামত করার।’

মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার এলাকার বাসিন্দা রফিক মিয়া জানান, শাহজিবাজার এলাকার রেল ক্রসিংয়ে দীর্ঘদিন ধরে কোনও গেট নেই। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। অনেক মানুষ হতাহত হওয়ার পরও গেট নির্মাণ করা হয়নি। বিষয়টি অনেকবার রেলস্টেশন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হলেও আমলে নেয়নি।

একই এলাকার বাসিন্দা আলআমিন জানান, রেলপথের অধিকাংশ স্থানেই ব্রিজগুলো ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে। ট্রেন ব্রিজের ওপর  উঠলে নড়াচড়া করে। আবার অনেক স্থানেই নাটবল্টু খোলা। রেললাইনের কোথাও কোথাও কাঠ জোড়া লাগিয়ে ব্যবহার করা হচ্ছে। যেকোনও সময়  ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

শায়েস্তাগঞ্জের বাসিন্দা কাশেম মিয়া জানান, ঢাকা-সিলেট রেলপথের স্লিপারে নাটবল্টু নেই বললেই চলে। কারও এ বিষয়ে মাথাব্যথা নেই।

শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম জানান, রেললাইনের স্লিপারের নাটবল্টু দুর্বৃত্তরা খুলে নিয়ে যায়। এজন্য এখন স্লিপারের নাটবল্টু লাগিয়ে তার ওপর ঝালাই দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘আমাদের মূল সমস্যা জনবল সংকট। প্রয়োজনের তুলনায় জনবল অনেক কম। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি সার্বক্ষণিক রেললাইনের সঠিক তদারিক করতে। প্রয়োজনীয় জনবল দূর করতে পারলে আরও বেশি সেবা দেওয়া সম্ভব হবে।’

সৌজন্যে :: বাংলা ট্রিবিউন

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১ ডিসেম্বর ২০১৯/মিআচৌ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   খালেদা জিয়ার মুক্তি‘র দাবীতে সুনামগঞ্জে বিএনপির পৃথক কর্মসূচী
  •   মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী কেউ রক্ষা পাবে না : প্রধানমন্ত্রী
  •   ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের নির্দেশ হাইকোর্টের
  •   আইসিজে’তে শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা গণহত্যার বিচার
  •   নিখোঁজ বিমান খুঁজতে গিয়ে সামনে এল অজানা বিশ্ব
  •   মাতৃভাষাসহ বাঙালীর প্রতিটি আন্দোলন ও সংগ্রাম শহীদ মিনারের সাথে সম্পৃক্ত
  •   সিলেটের ১৫০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পাড়ি দেবেন চার রোভার
  •   খাদিমপাড়ায় মাকে কুপিয়ে হত্যা করল ছেলে
  •   প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আটক ২২
  •   সিলেটে পুলিশের শর্ত মেনে বিএনপির শোভাযাত্রা
  •   ঢাকায় সিলেট থান্ডার্সের কোচ হার্শেল গিবস
  •   সেনাবাহিনী নিয়ে তৈরি অভিনয়ে নামছেন ধোনি!
  •   নো এনআরসি, নো ডিভাইড অ্যান্ড রুল: মমতা
  •   স্পেনে কোরআন প্রচারে মুসলমানদের নয়া উদ্যোগ
  •   বিশ্বনাথ মুক্ত দিবস আজ
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী কেউ রক্ষা পাবে না : প্রধানমন্ত্রী
  •   ‘জয় বাংলা’কে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের নির্দেশ হাইকোর্টের
  •   সিলেটের ১৫০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পাড়ি দেবেন চার রোভার
  •   প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আটক ২২
  •   আপিল বিভাগের এজলাস কক্ষে বসছে সিসি ক্যামেরা
  •   মেয়ে নিতে দুবাই থেকে ঢাকায় আসেন ড্যান্স ক্লাবের মালিকরা
  •   নাগেশ্বরীতে এক বিদ্যালয় ভবনে ২২ মৌচাক!
  •   ঢাকা-দার্জিলিং-সিকিম রুটে চালু হচ্ছে বাস
  •   শাজাহান খানের বক্তব্যে সরকার বিপদে পড়বে না: ওবায়দুল কাদের
  •   ব্যর্থ মন্ত্রীদের সরিয়ে দেয়া হবে: ওবায়দুল কাদের
  •   হাকিমপুরী জর্দা পেলেই জব্দ
  •   নারী-পুরুষের সমন্বিত কাজে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী
  •   প্রবাসী আয়ে বিশ্বে নবম বাংলাদেশ
  •   তেলাপোকাও পাখি আর শাজাহান খানও মানুষ
  •   আশা-নিরাশার দোলাচলে পুঁজিবাজার