আজ বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০ ইং

নাগরিকত্ব বিল ভারতের ধর্মনিরপেক্ষতাকে দুর্বল করবে

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১২-১২ ০১:২৭:২১

সিলেটভিউ ডেস্ক :: ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিল দেশটির ঐতিহাসিক ধর্মনিরপেক্ষ অবস্থানকে দুর্বল করবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন।

তিনি বলেন, ভারতের এই বিল দেশটিকে দুর্বল করবে। আর বাংলাদেশে সব ধর্মের লোক শান্তিতে রয়েছেন। কেউই এখানে নিপীড়িত নয়। গতকাল দুপুরে নিজ কার্যালয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলারের সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভারত ঐতিহাসিকভাবে একটি সহনশীল দেশ। তারা ধর্মনিরপেক্ষতায় বিশ্বাস করে এবং সেখান থেকে পদস্খলন হলে ভারতের যে ঐতিহাসিক অবস্থান সেটা দুর্বল হবে বলে আমি মনে করি। নাগরিকত্ব বিল পাসের সময় যে বিবৃতি দেওয়া হয়েছে সেটি ঠিক না বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশে ধর্মীয় সম্প্রীতি অত্যন্ত বেশি দাবি করে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশে অন্য ধর্মের লোক নিপীড়িত নয়। সব ধর্মের লোক এখানে আছেন। সরকারি অনেক কর্মকর্তা অন্য ধর্মের লোক। সুতরাং তারা যে তথ্য দিয়েছে এখান থেকে নির্যাতিত হয়েছে-সেটি ঠিক নয়। যারা তথ্য দিয়েছেন এবং যারা তাদের বুঝিয়েছেন তারা সত্য কথা বলেননি। আমি আশা করব, আমাদের দেশে যারা অন্য ধর্মের লোক আছে তারা বিবৃতি দেবে যে এটি ঠিক নয়। আমরা আশা করি বাংলাদেশে দুশ্চিন্তা বা আতঙ্ক সৃষ্টি হয় এমন কোনো কাজ ভারত করবে না।’

এদিকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর গণহত্যা চালানো দেশটির সেনাবাহিনীর পক্ষ নেওয়ায় অং সান সু চির সমালোচনা করেছেন তিনি। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক আদালতে অং সান সু চির মিয়ানমারকে ডিফেন্ড করাটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি নিজে সু চির মুক্তির জন্য আন্দোলন করেছি। এখন তার এই অধঃপতন দেখে আমার খুব দুঃখ লাগছে। আমি আশা করব তিনি তার ভুল বুঝতে পারবেন এবং মানবতার পক্ষে কথা বলবেন।

সৌজন্যে: বাংলাদেশ প্রতিদিন
সিলেটভিউ২৪ডটকম/১২ ডিসেম্বর ২০১৯/ডেস্ক/ডিজেএস

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন