আজ বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০ ইং

দোকানে ডাল নেই, দুই ভাইয়ের গুদামে মজুদ ৮৪ হাজার কেজি

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৩-২৬ ০৯:৫৭:২০

সিলেটভিউ ডেস্ক ::  দোকানে মিলছে না ডাল। আবার ডাল মিললেও দাম ঊর্ধ্বমুখী। করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকির সময়ে সিন্ডিকেট করে মিলে ও খুচরা দোকানে ডাল সরবরাহ থেকে বিরত থাকে সিন্ডিকেট। এতে বাজারে হু-হু করে ডালের দাম বেড়ে যায়। সিন্ডিকেট করে দাম বাড়ানোর সত্যতা পেয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে নিত্যপণ্য বেশি দামে বিক্রি করায় জরিমানা করা হয়েছে।

কুষ্টিয়া : সিন্ডিকেট চক্রকে ধরতে অভিযান চালিয়ে কুষ্টিয়া শহরের দুই ভাইয়ের গুদামে মজুদ ৮৪ হাজার কেজি ডালের সন্ধান পান ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ডাল মজুদ করায় দুই ব্যবসায়ীকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার শহরের বড়বাজার এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ হাসান এ অভিযান পরিচালনা করেন। জরিমানা করা ব্যবসায়ীরা হলেন দুই ভাই বৈদ্যনাথ সাহা ও স্বপন সাহা। বৈদ্যনাথ সাহাকে ৫০ হাজার টাকা ও স্বপন সাহাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফন নাহার বলেন, শহরে মসুর ডালের সবচেয়ে বড় ব্যবসায়ী হলেন বৈদ্যনাথ সাহা ও স্বপন সাহা। তারা দু’জন ভাই। কয়েক দিন ধরে তারা নিজেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে মসুর ডাল মজুদ করতে থাকেন। তারা মিলে ও খুচরা দোকানে ডাল সরবরাহ থেকে বিরত থাকেন। এতে বাজারে হু-হু করে মসুর ডালের দাম বেড়ে যায়। গোপনে খবর পেয়ে বেলা ১১টার দিকে সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

এছাড়া ভেড়ামারায় অতিরিক্ত দামে গ্লাভস ব্লিচিং পাউডারসহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী অস্বাভাবিক দামে বিক্রি করায় তাহিরা ফার্মেসিকে ৩০ হাজার টাকা ও মোল্লা স্টোরকে ৪০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। বুধবার উপজেলা বাজারে ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সোহেল মারুফ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়ে এ অর্থদণ্ড দেন।

চট্টগ্রাম : নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাত ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে অর্ধলাখ টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর চট্টগ্রাম। বুধবার নগরীর কাপ্তাই রাস্তার মোড়, কাজীর হাট, কামাল বাজার, খাতুনগঞ্জ, হাজারী লেন, আকবরশাহ ও পাহাড়তলী এলাকায় যৌথ অভিযান চালায় অধিদফতরের বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়।

এ সময় অতিরিক্ত দামে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিক্রয় ও মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য রাখা, নিত্যপণ্যের মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য ধ্বংস করা হয়।

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত মূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হাতের গ্লাভস, মেয়াদ উত্তীর্ণ ও রেজিস্ট্রেশনবিহীন ওষুধ বিক্রির অপরাধে আটটি ওষুধের দোকানকে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার টাঙ্গাইল র‌্যাব কোম্পানি কমান্ডার মেজর আবু নাঈম মোহাম্মদ তালাতের নেতৃত্বে শহরের সাবালিয়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা শেষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাপস পাল এ অর্থদণ্ড দেন। পরে মেয়াদ উত্তীর্ণ ও রেজিস্ট্রেশনবিহীন ওষুধ ধ্বংস করা হয়।

আশুগঞ্জ (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : আশুগঞ্জের লালপুর বাজারে অতিরিক্ত মূল্যে পণ্য বিক্রি ও মূল্য তালিকা না থাকায় বিভিন্ন দোকানকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফিরোজা পারভীন মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) : ত্রিশাল বাজারে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ৫ মেডিসিন ব্যবসায়ীকে ৪১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। এদের মধ্যে- রূপালী ব্যাংক সংলগ্ন শহিদুল মেডিকেলকে ১০ হাজার টাকা, গো-হাটা মোড়ের ওষুধ ব্যবসায়ী আকরাম হোসেনকে ১০ হাজার টাকা, আমিরুল ইসলামকে ৫ হাজার টাকা, ফরিদ আহমেদকে ৬ হাজার টাকা ও ত্রিশাল থানা রোডের ইব্রাহীম মার্কেটের কাশেম মেডিকেল হলকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সৌজন্যে : যুগান্তর

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২৬ মার্চ ২০২০/ডেস্ক/মিআচৌ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন