আজ বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০ ইং

সিলেটে যেভাবে ‘গাঁজার বাগান’ গড়েন সেই আজাদ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৯-১২-১১ ০০:২২:০২

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :: নিজস্ব কিংবা ভাড়া বাসা-বাড়িতে এক চিলতে ছাদ থাকলে বসবাসকারীদের মধ্যে অন্যরকম উচ্ছ্বাস কাজ করে। এই উচ্ছ্বাস চাঁদনী রাতে ছাদে বসে জোৎস্না পোহানোর অথবা ছাদের কোণে সবুজ বাগান গড়ে তোলার। সিলেট নগরীর শাহপরান থানাধীন খাদিমপাড়ার আবুল কালাম আজাদও নিজ বাড়ির ছাদে গড়ে তুলেছিলেন ‘সবুজ বাগান’। তবে অন্যরা ফলজ বৃক্ষ কিংবা শাকসবজির বাগান গড়লেও আজাদ গড়ে তুলেছিলেন গাঁজার বাগান! দীর্ঘদিন ধরে ‘রুদ্ধদ্বার’ এই বাগানের গাঁজা দিয়েই নিজের সেবনচাহিদা মিটিয়ে আসছিলেন তিনি। তবে শেষ রক্ষা হয়নি, র‌্যাবের জালে আটকা পড়েছেন আজাদ।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, সিলেট নগরীর শাহপরান থানার খাদিমপাড়ার মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে আবুল কালাম আজাদ (৩৫)। খাদিমপাড়ার ৪নং ওয়ার্ডের ৭নং রোডে তার বাড়ি। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গত সোমবার (৯ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ১০টার দিকে আজাদের বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে একতলা বাড়ির ছাদ থেকে জব্দ করা হয় চারটি গাঁজার গাছ। যতœ করে এসব গাছ নিজের ছাদে লাগিয়েছিলেন আজাদ। এসময় আজাদকেও গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর আবুল কালাম আজাদকে জিজ্ঞাসাবাদ করে র‌্যাব।

র‌্যাব-৯ এর এএসপি শামীম আনোয়ার জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে জানান, আবুল কালাম আজাদ ১৬ বছর বয়স থেকে গাঁজা সেবন শুরু করে গেল ১৯ বছর ধরে সেবন করে আসছেন। দীর্ঘদিন গাঁজা সেবন করার একপর্যায়ে তার মনে হয় যে অনেক টাকা নষ্ট হয়ে গেছে। সে চিন্তা থেকেই আজাদ নিজের বাড়ির ছাদে গাঁজার গাছ লাগানোর পরিকল্পনা করেন। তবে তার বাবা বেঁচে থাকায় পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে সময় লাগে আজাদের।

র‌্যাব কর্মকর্তা শামীম আনোয়ার আরো জানান, বছরখানেক আগে আজাদের বাবা মারা যান। এরপর আজাদ বাড়ির ছাদে গাঁজার গাছ লাগান। সেই গাছ যাতে কারো চোখে না পড়ে, সেজন্য ছাদে ওঠার পথ বন্ধ করে দেন তিনি। তারপরও যদি কেউ ছাদে ওঠেই পড়ে, সেক্ষেত্রে ‘অনাহূত অতিথিকে’ বিপদে ফেলতে ছাদের মধ্যে বিদেশি কুকুল পোষেন আজাদ। তিনি নিজে বাড়ির একটি আমগাছ বেয়ে বিশেষ কায়দায় ছাদে ওঠতেন।

র‌্যাব জানায়, গ্রেফতারকৃত আজাদকে শাহপরান থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। আলামত হিসেবে গাছগুলো সংরক্ষণ করা হয়েছে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১১ ডিসেম্বর ২০১৯/শাদিআচৌ/আরআই-কে

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন