আজ বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১ ইং

জৈন্তাপুরে ফ্রেন্ডশীপ পাবলিক স্কুলের মতবিনিময় সভা

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-১১-২৮ ১৯:৪৪:০০

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে আধুনিক সুযোগ সুবিধা নিয়ে ফ্রেন্ডশীপ পাবলিক স্কুলের আনুষ্ঠানিক যাত্রা উপলক্ষ্যে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সমাজসেবী, শিক্ষানুরাগী, শিক্ষক-সচেতন মহল, অভিবাবকদের নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়েছে। এসএসসি ১৯৯৬ ব্যাচের ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডেশন এর  আয়োজন করে।   
 
শনিবার সকাল ১১টায় স্কুলের নিজস্ব মিলনায়তনে সেন্ট্রাল জৈন্তা উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোঃ হুসাইন আহমদের (বিএসসি) সভাপতিত্বে ফ্রেন্ডশীপ পাবলিক স্কুলের পরিচালনা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল আলমের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমদ। মতবিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্কুল পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক লেলিন পোদ্দার। বিদ্যালয় সম্পর্কীত বিশেষ ডকুমেন্টারী উপস্থাপন করেন ফ্রেন্ডশীপ পাবলিক স্কুল পরিচালনা কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক সুরঞ্জিত দেব চৌধুরী।  

বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানাজার মোঃ আবু হানিফ মিয়া, দরবস্ত ইউপি’র চেয়ারম্যান বাহারুল আলম বাহার, নিজপাট ইউপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ ইয়াহিয়া, মাদার মোকাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুর রহিম, ব্র্যাক মানেজার দিপংকর মন্ডল।  

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এসএসসি ব্যাচ ১৯৯৬ ফ্রেন্ডশীপ পাবলিক স্কুলের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মোঃ মহিবুল হক, সহঃ সভাপতি মোঃ মামুনুর রশিদ, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক মোঃ বিলাল আহমদ, দপ্তর সম্পাদক মোঃ ফয়জুল হাসান, প্রচার সম্পাদক রিংকু লাল দেব, সদস্য কবির আহমদ প্রমুখ।    

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমদ বলেন, যুগের সাথে তাল মিলিয়ে জৈন্তাপুর উপজেলায় মান সম্পন্ন বিদ্যালয় এবং প্রযুক্তি সম্পন্ন কোন পাবলিক বিদ্যালয় নেই। মানসম্পন্ন একটি বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলে এলাকার উন্নয়ন হয় এবং এলাকাটি জনবহুল এলাকা হিসাবে পরিনত হয়। আমি মনে    করি জৈন্তাপুর উপজেলা সেন্ট্রাল জৈন্তা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ব্যাচ ১৯৯৬ সনের তরুন উদ্যোক্তাদের নিরলস পরিশ্রমে এবং এলাকার শিক্ষার বিপ্লব সৃষ্টির লক্ষ্যে সরাসরি নিজস্ব ভবনে আধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা নিয়ে ফ্রেন্ডশীপ পাবলিক স্কুল প্রতিষ্ঠা করছে যাহা আমরা পারিনি। আমি আশাবাদ ব্যক্ত করছি মান সম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসাবে যদি বিদ্যালয়টি তার আলোকবর্তিকা ছড়িয়ে দিতে পারে তাহলে মান সম্মত শিক্ষার জন্য এ উপজেলার ছাত্রদের নিয়ে অভিবাবকরা সিলেট শহর কিংবা শহরতরীতে যেতে হবে না। শিক্ষার মান উন্নয়নে আমার সকল প্রকার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।     
 
সিলেটভিউ২৪ডটকম/ ২৮ নভেম্বর ২০২০/হানিফ/জুনেদ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন