আজ সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১ ইং

চৌহাট্টায় সংঘর্ষ : সিলেটে ধর্মঘটের পথেই হাটছেন পরিবহন শ্রমিকরা!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২১-০৩-০৩ ২১:৩০:৩৭

(ফাইল ছবি)

নিজস্ব প্রতিবদেক :: সিলেট নগরীরে চৌহাট্টায় অবৈধ গাড়ি স্ট্যান্ড উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সংঘর্ষের ঘটনায় নগরভবনে অনুষ্ঠিত সমঝোতা বৈঠকের সিদ্বান্ত ‘কার্যকর হয়নি’ দাবি জানিয়ে ১০ দিনের আলটিমেটাম দিয়েছেন  জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ।

বুধবার (৩ মার্চ) সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার বরাবর দেওয়া এক স্মারকলিপিতে তারা এই আলটিমেটাম দেন। বিষয়টি সিলেটভিউ-কে নিশ্চিত করেছেন জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের প্রধান কার্যালয়ে সভাপতি ময়নুল ইসলাম।

তিনি জানান- ১৩ মার্চের মধ্যে তিন দফা দাবি মেনে না নিলে ১৪ মার্চ ভোর ৬ টা থেকে সিলেট জেলার পরিবহন শ্রমিকরা অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি পালন করবেন। এছাড়াও আগামী শনিবার দুপুরে সিলেট হুমায়ুন রশীদ চত্বরে মানববন্ধন পালন করবেন পরিবহন শ্রমিকরা। 

পরিবহন শ্রমিকদের ৩ দফা দাবি হচ্ছে- কোতোয়ালি থানায় শ্রমিক ও নেতৃবৃন্দের উপর দায়ের করা মিথ্যা মামলাদ্বয় প্রত্যাহার, ভাঙচুরকৃত গাড়ির ক্ষতিপূরণ ও আটককৃত গাড়ি ফেরত দেওয়া ও গাড়ি রাখার জন্য স্ট্যান্ডের ব্যবস্থা করা।

সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হাজী মো. ময়নুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মুহিম পুলিশ কমিশনারের কাছে পরিবহন শ্রমিকদের পক্ষে এ স্মারকলিপি পেশ করেন।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়- চৌহাট্টার ঘটনার প্রেক্ষিতে মোল্লারগাও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মখন মিয়া, সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রহমান রিপন, বন্দরবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সভাপতি আতিক মিয়া ও সিলেট জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের সভাপতি গোলাম হাদী ছয়ফুলের আহবানে গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে সিটি করপোরেশনে বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ কাউন্সিলররা, মালিক শ্রমিক নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে দীর্ঘ আলোচনার পর ১৭ ফেব্রুয়ারি সৃষ্ট ঘটনায় ভাঙচুরকৃত গাড়িগুলো ক্ষতিপূরণ প্রদান, আটককৃত গাড়ি ফেরত ও মামলা প্রত্যাহার করতে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্বান্ত গ্রহণ করা হয়। কিন্তু এখনো সিলেট সিটি করপোরেশন থেকে এ ব্যাপারে কার্যকর কোনো উদ্যোগ গ্রহন করা হয়নি।

স্মারকলিপিতে পরিবহন নেতারা আরও বলেন- এ নিয়ে গত মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের প্রধান কার্যালয়ে সভাপতি ময়নুল ইসলামের সভাপতিত্বে সিলেট জেলার ৬টি রেজিস্ট্রার্ড  সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সমন্বয়ে প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই প্রতিবাদসভায় সৃষ্ট ঘটনার প্রেক্ষিতে সমঝোতা বৈঠকের সিদ্বান্ত বাস্তবায়ন না করায় নিন্দা জানানো হয়। একই সঙ্গে ৩ দফা দাবিতে আলটিমেটামসহ কর্মবিরতির কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

স্মারকলিপিতে এ ব্যাপারে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের সর্বাত্মক সহযোগিতা চেয়েছেন পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ।



সিলেটভিউ২৪ডটকম / ডালিম-৮

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন