আজ বুধবার, ২০ জুন ২০১৮ ইং

ডেসটিনি বিলুপ্তিতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০৫-২৮ ১১:০০:৪৭

সিলেটভিউ ডেস্ক :: ডেসটিনি-২০০০ লিমিটেড কোম্পানিটি অবসায়ন বা অবলুপ্তি করার কেন নির্দেশ দেওয়া হবে তা জানতে চেয়ে হাইকোর্টের  শোকজ নোটিশ আরও চার সপ্তাহ স্থগিত থাকবে। এ সময়ের মধ্যে আবেদনকারীদের সিপি (লিভ টু আপিল) করতে বলা হয়েছে।

সোমবার (২৮ মে) প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে তিন বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ। জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ অ্যান্ড ফার্মসের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন এ কে এম বদরুদ্দোজা।

পরে বদরুদ্দোজা বলেন, হাইকোর্টের আদেশের ওপর চেম্বার আদালতের দেওয়া স্থগিতাদেশ আরও চার সপ্তাহ বজায় থাকবে। এ সময়ের মধ্যে আবেদনকারীদের সিপি (লিভ টু আপিল) করতে বলেছেন আপিল বিভাগ।

গত ১৫ মে হাইকোর্ট ডেসটিনি-২০০০ লিমিটেড কোম্পানিটি অবসায়ন বা অবলুপ্তি করার প্রশ্নে শোকজ নোটিশ দেন। হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে আবেদন করেন ওই কোম্পানির পরিচালক লে জে (অব.) এম হারুন-অর-রশীদ ও পাঁচ শেয়ার হোল্ডার। ২১ মে চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে ২৭ মে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠান।

এরপর রোববার (২৭ মে) শুনানি শেষে আদেশের জন্য ২৮ মে অর্থাৎ সোমবার দিন ধার্য করা হয়। সে অনুযায়ী সোমবার আদেশ দেন আপিল বিভাগ।

হাইকোর্টের আদেশের পর জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ অ্যান্ড ফার্মসের পক্ষে আইনজীবী এ কে এম বদরুদ্দোজা জানিয়েছিলেন, ২০০০ সালের ১৪ ডিসেম্বর রেজিস্টার্ড হওয়া কোম্পানিটির ২০১২ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বর্ষগুলোর বার্ষিক সাধারণ সভা বিলম্বের মার্জনা চেয়ে ওই কোম্পানির পরিচালক লে. জে (অব.) এম হারুন-অর-রশীদ ও ৫ শেয়ার হোল্ডার হাইকোর্ট আবেদন করেন।

হারুন-অর-রশীদ ছাড়া বাকি পাঁচজন হলেন- কাজী মোহাম্মদ আশরাফুল হক, মো. সাইফুল আলম রতন, সিরাজুম মুনীর, মো.জাকির হোসেন এবং বিপ্লব বিকাশ শীল।

আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে, জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ অ্যান্ড ফার্মসের রেজিস্ট্রার ও ডেসটিনি-২০০০ লিমিটেডকে।

এ কে এম বদরুদ্দোজা বলেন, ‘আইন অনুসারে, প্রতি ইংরেজি পঞ্জিকা-বত্সরে বার্ষিক সাধারণ সভা করতে হয়। এতে ব্যর্থ হলে কোম্পানির যে কোনো সদস্যের আবেদনে আদালত ওই কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা আহ্বান করিতে অথবা আহ্বান করার নির্দেশ দিতে পারিবে এবং আদালত উক্ত সভা আহ্বান অনুষ্ঠান ও পরিচালনার জন্য যেরূপ সমীচীন বলিয়া বিবেচনা করিবে সেইরূপ অনুবর্তী (consequential) ও আনুষংগিক (incidental) আদেশ প্রদান করিতে পারিবে৷’

‘এ আইন অনুসারে তারা হাইকোর্টে আবেদন করেন। কিন্তু যে ছয়জন আবেদন করেছেন, তাদের মধ্যে ডেসটিনির সভাপতি ও সাবেক সেনা প্রধান হারুন-অর-রশীদ শর্ত সাপেক্ষে জামিন পেয়েছেন। জামিনের শর্ত ছিলো তদন্ত পর্যন্ত তিনি এ কোম্পানির কোনো কার্যক্রমের সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পর্ক রাখবেন না। আবেদনে তদন্ত শেষ হয়েছে কিনা সে বিষয়ে কিছু বলা নেই। ফলে তিনি আবেদন করতে পারেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়। এছাড়া তাদের এজিএমের আবেদনে উল্লেখ আছে ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত কোম্পানির কোনো অডিট নেই। অডিট রিপোর্ট না থাকলে বার্ষিক সাধারণ সভা কিভাবে হবে?’

তিনি আরও বলেন, আবেদনে তারা বলেছেন, দুদকের মামলায় তাদের সব সম্পদ জব্দ করা হয়েছে। সে সম্পদ তত্ত্বাবধানে তত্ত্বাবধায়কও নিয়োজিত আছেন। ফলে কার্যত কোম্পানি হিসেবে এর কোনো কর্মকাণ্ড নেই। এছাড়া সাত পরিচালকের মধ্যে ২০১২ সালের অক্টোবর থেকে কোম্পানির পরিচালক রফিকুল আমীন ও মোহাম্মদ হোসেন জেলে আছেন।

‘আর বাকি চারজন পলাতক। এছাড়া তদন্ত চলাকালে অপর পরিচালক হারুন-অর-রশীদ এ কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করবেন না এমন শর্তে হাইকোর্ট থেকে জামিন নেন। দুদকের কারণে ছয় বছর ধরে কোম্পানির কার্যক্রম প্রায় বন্ধ। এখন পরিচালক ছাড়া এজিএম হবে কিভাবে?’

এ কারণে আদালত এজিএমের বিষয়ে আদেশ না দিয়ে কোম্পানিটি অবসায়ন করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে ডেসটিনি-২০০০ লিমিটেডের প্রতি হাইকোর্ট শোকজ নোটিশ জারি করেছেন বলে জানান এ কে এম বদরুদ্দোজা।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/২৮ মে ২০১৮/ডেস্ক/আআ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেট সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে সাইদীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ
  •   রাজশাহী, বরিশালের ঐক্য দেখাতে পারল না সিলেট আ.লীগ
  •   গালিগালাজ স্বাস্থের জন্য উপকারী!
  •   ভিসা ছাড়াই ১ মাস থাকার সুযোগ হাইনান দ্বীপে
  •   ব্রাজিল মিডিয়ায় নেইমারের মুণ্ডপাত
  •   যেসব কারণে শহরের মেয়েরা বেশি মোটা হয়!
  •   নবনির্বাচিত ছাত্রদল নেতৃবৃন্দকে সিলেট বিএনপির অভিনন্দন
  •   বিয়েতে কমে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের সম্ভাবনা
  •   আর্জেন্টিনা একাদশে আসছে ব্যাপক পরিবর্তন!
  •   ‘স্পেন-পর্তুগালকে ভয় পায় না ইরান’
  •   মৃত্যুর দিনক্ষণ বলে দেবে গুগল!
  •   বোমা ফাটালেন শাকিরা...
  •   লাল কার্ড পেয়ে ইতিহাস গড়লেন সানচেজ!
  •   বিশ্বকাপের গ্যালারিতে উষ্ণতা ছড়ালেন ব্রিটিশ সুন্দরীরা
  •   বিশ্বকাপে সমকামিতা বিরোধী স্লোগান
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগবিধিতে আসছে পরিবর্তন
  •   স্বাধীনতা বিরোধীদের ধিক্কার জানাতে ঢাকায় নির্মাণ হবে ঘৃণা স্তম্ভ
  •   'মায়ের পরনের কাপড়ও খুলে নিয়ে যায় বাবার খুনিরা'
  •   রিয়াদে আগুনে পুড়ে দুই বাংলাদেশির মৃত্যু
  •   এবারের ঈদে ঘরে ফেরার যাত্রা ছিল আনন্দদায়ক
  •   শান্তিপূর্ণভাবে ঈদ পালন করলো দেশবাসী
  •   এবার ঈদ যাত্রা হয়েছে যানজট মুক্ত
  •   সেলফি তুলতে গিয়ে ২ মেয়েসহ বাবার মৃত্যু
  •   সেনা প্রধান হলেন জেনারেল আজিজ আহমেদ
  •   প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগে বড় বিজ্ঞপ্তি
  •   জুনের শেষে ধেয়ে আসছে বন্যা
  •   বাংলাদেশের গণতন্ত্র এখন সুরক্ষিত
  •   আর্জে‌টিনার পতাকা টানাতে গিয়ে প্রাণ গেল স্কুলছাত্রের
  •   ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নারী ইয়াবা কারবারি নিহত
  •   এনা পরিবহনের বাসে নারী নির্যাতনের অভিযোগ