আজ সোমবার, ০১ জুন ২০২০ ইং

বানিয়াচংয়ে করোনা ঠেকাতে এক মহল্লা ‘স্বেচ্ছায়’ লকডাউন

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৪-০৬ ১৯:৩৮:৩৪

বানিয়াচং প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে একটি মহল্লা করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে স্বেচ্ছায় লকডাউন করে দিয়েছে সেখানকার বাসিন্দারা।

সোমবার (৬ এপ্রিল) বিকাল ৫ টার দিকে উপজেলার সদর ১ নং ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত পুরান তোপখানা মহল্লা পুরোপুরি লকডাউন করে দেয়া হয়েছে। 

এখানে কারও শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা যায়নি। তবুও আগাম সতর্কতা হিসেবে এই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

তারা জানান, বর্তমানে দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। তাই নিজেদের রক্ষার স্বার্থে আমরা আমাদের মহল্লা লকডাউন করে দিয়েছি।

ফলে এই মহল্লায় বাইরে থেকে কেউ প্রবেশ করতে পারছে না। আর এখানকার বাসিন্দারাও একান্ত প্রয়োজন ছাড়া মহল্লার বাইরে যাচ্ছেন না।

আজ বিকালে ওই মহল্লার সচেতন যুবকরা এলাকার মুরুব্বীদের সাথে পরামর্শ করে মহল্লার তিনটি প্রবেশপথে বাঁশের প্রতিবন্ধকতা ও নোটিস টাঙিয়ে দিয়েছেন। তাতে লেখা আছে ‘করোনা ভাইরাসের সচেতনতা বাড়াতে আজ থেকে পুরান তোপখানা মহল্লা লকডাউন।’

পুরান তোপখানা মহল্লার বাসিন্দা ও বড়বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম সাইফুল ইসলাম সেলিম জানান, ‘পুরান তোপখানা মহল্লাটির অবস্থান স্থানীয় বড়বাজার সংলগ্ন। তাই যৌথ বাহিনীর অভিযানের সময় অনেক মানুষ নিজেদের আড়াল করতে দৌড়ে খুব সহজে ওই মহল্লায় ঢুকে যায়। তাছাড়া মহল্লায় আড্ডা দেয়ার জন্য প্রতিদিন অনেক বহিরাগত যুবক এখানে আসে। তাদের এ বেপরোয়া চলাফেরায় মহল্লায় করোনা ঝুঁকি এড়াতেই সচেতন মহল্লাবাসী এ উদ্যোগ নিয়েছেন।’

ওই মহল্লার বাসিন্দা এবং বানিয়াচং উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ রিপন খান জানান, ‘করোনা সতর্কতায় পুরান তোপখানা মহল্লায় বহিরাগতদের প্রবেশ ঠেকাতে মহল্লাবাসী যে উদ্যোগ নিয়েছেন তা নিঃসন্দেহে অনেক ভালো। আর এটি দেখে অন্যরাও অনেক সচেতন ও উদ্বুদ্ধ হবেন।’


সিলেটভিউ২৪ডটকম/০৬ এপ্রিল ২০২০/জেইউ/এসডি

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন