আজ রবিবার, ০৭ জুন ২০২০ ইং

''দ্রুত ব্যবস্থা নিন, নইলে নিউ ইয়র্কের মতো ভুগতে হবে সবাইকে''

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৪-০৫ ০৯:৪৫:১৪

রওশন হক, নিউ ইয়র্ক থেকে :: চীন-মার্কিন করোনা দ্বন্দ্বের মধ্যেই নিউ ইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুয়োমো সতর্ক করছেন আমেরিকার বাকি শহরের গভর্নরদের। ‘দ্রুত ব্যবস্থা নিন, তা না হলে নিউ ইয়র্কের মতো ভুগতে হবে সবাইকে’; এই বার্তা দিয়ে কুয়োমোর আশঙ্কা, তাদের শহরে করোনার প্রকোপ যত দিনে শেষ হবে, তত দিনে ১৬ হাজার মানুষ করোনা মহামারিতে মারা যেতে পারেন।

করোনার সঙ্গে যুঝতে ট্রাম্প ২ লাখ কোটি ডলারের পরিকাঠামো তৈরি করার প্রস্তাব দিয়েছেন। কিছু দিন আগে এমন বিপুল পরিমাণ অর্থ স্টিমুলাস প্যাকেজ হিসেবে ব্যবহারের জন্য প্রস্তাব পাশ করান তিনি। তার মধ্যেও ৬০ লক্ষের উপরে মানুষ কাজ হারাতে পারে বলে আশঙ্কা। ৬.৬ মিলিয়ন মানুষ বেকার ভাতার জন্য ইতিমধ্যেই আবেদন করেছে। আমেরিকায় ২ লক্ষ ১৫ হাজারের বেশি মানুষ করোনার কবলে।

চীনে করোনায় মৃত বা আক্রান্তের সঠিক সংখ্যা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই প্রকাশ করা হচ্ছে না, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তিন অফিসারকে উদ্ধৃত করে কাল এমন একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় মার্কিন একটি ওয়েবসাইটে। যে দাবি কে পাত্তা না দিয়ে আজ চীনের বৈদেশিক মন্ত্রণালয় মুখপাত্র বলেছেন, কিছু মার্কিন কর্মকর্তা শুধু দায় চাপিয়ে দিতে চাইছে। আমরা তাদের সঙ্গে তর্কে যেতে চাই না। কিন্তু তারা যেভাবে বারবার আমাদের সম্মানহানি করছেন, তাতে আমাদেরও সত্যিটা বলতে হবে।

২ ফেব্রুয়ারি চীন থেকে আমেরিকা প্রবেশের সবরকম পথে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছিল আমেরিকা। তার পরেও করোনা-মোকাবিলায় আমেরিকার এমন হাল কেন, সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ করে চীনা মুখপাত্রের প্রশ্ন, তার পরের দু’মাস আমেরিকা কী করল, কেউ বলতে পারেন?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, ইউরোপে করোনায় যত মৃত্যু ঘটেছে, তার মধ্যে ৯৫ শতাংশ মানুষের বয়স ছিল ৬০-এর উপরে। তা সত্ত্বেও সংস্থার ইউরোপ শাখার প্রধান জানান, শুধু বয়স্করাই করোনার কোপে পড়ছেন, এমন ধারণা তথ্যগত ভাবে ঠিক নয়। ৫০-এর নীচে যাঁরা, তাঁদের ১০-১৫ শতাংশ এই ভাইরাসে সাধারণ থেকে গুরুতরভাবে আক্রান্ত হচ্ছেন। ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান জানান, করোনার জেরে আর্থিক মন্দায় কাজ হারাতে পারেন লক্ষ লক্ষ মানুষ। আজ ব্রিটেনে কোভিড-১৯-এ মারা গিয়েছেন ৫৬৯ জন। মোট আক্রান্ত সাড়ে ৩৩ হাজারের উপরে। স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৫০ জন প্রাণ হারিয়েছেন করোনায়। এক দিনে রেকর্ড মৃত্যুর জেরে সেখানে মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়েছে।
 
আগের তুলনায় সংক্রমণের হার কমে গেলেও চীনে ফের নতুন করে ৩৫ জন করোনা-আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। তবে সবক্ষেত্রেই বাইরে থেকে আসার জন্য উপসর্গ দেখা যাচ্ছে বলে দাবি প্রশাসনের। নতুন করে ৬ জন মারা গেছে হুবেই প্রদেশে। সব মিলে চীনে এখন মৃতের সংখ্যা ৩৩১৮। তবে এই সংখ্যা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গোয়েন্দা সূত্র উদ্ধৃত করে তিনি বলেছেন, ‘কী করে বুঝব ওরা ঠিক তথ্য জানাচ্ছে? ওদের সংখ্যা অনেকটাই কম বলে মনে হচ্ছে।’

সিলেটভিউ২৪ডটকম/৫ এপ্রিল ২০২০/মিআচৌ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন