আজ সোমবার, ০১ জুন ২০২০ ইং

ছাতকে মানবিক প্রশাসন, আত্মঘাতী জনগণ!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৪-০৪ ০০:৩১:৪৪

ছাতক প্রতিনিধি :: অনুরোধ একটাই- 'বাবারা, ঘরে ফিরে যাও। বেঁচে থাকলে রোজি-রোজগার করার অঢেল সময় পাবে। কিন্তু ভয়াবহ করোনা ছড়িয়ে পড়লে বাঁচার সম্ভাবনা কম, তাই ভয়ঙ্কর এই ভাইরাসটি যাতে ছাতকে না ছড়ায় সেই নিয়ম মেনেই আমাদেরকে চলতে হবে। পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন আর সচেতন থাকতে হবে। যতটা সম্ভব ঘর থেকে বের হওয়া চলবে না এবং রাস্তায় ভিড় করা যাবে না।'

এভাবেই নিজের হাতে হ্যান্ড মাইক নিয়ে বাজারে বাজারে মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করছেন ছাতক উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ গোলাম কবির।

তার এই করজোড় অনুরোধে টনক নড়ে উৎসুক জনতার তৎক্ষণাৎ তারা ভিড় ভেঙে ছুটেন নিজ ঘরের দিকে। কিন্তু পরক্ষণেই আবারো মানুষের জটলা এ যেনো চুর পুলিশ খেলা।

স্বেচ্ছায় যেনো আত্মঘাতী হয়ে তারা কভিড-১৯ এর সাথে সাক্ষাৎ করতে চায়।

সারাদিনের নিজের অভিজ্ঞতা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে একটি আবেগঘন স্ট্যাটাস দেন এ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

তিনি তার ফেইসবুক আইডিতে লিখেছেন "সারাদিন সেনাবাহিনী, পুলিশ এর সদস্যবৃন্দ নিয়ে ছাতকের মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করলাম, কোথাও কোথাও ভাল সাড়া পেয়েছি। অনেকে জায়গায় ফিরে আসামাত্র আবার নিজের মতো। মনে হলো যাহা বায়ান্ন তাহাই তিপ্পান্ন। আজকের একটি দিন আপনার বহুকাল মনে রাখা লাগতে পারে। কথায় আছে সময়ের এক ফোড় অসময়ের দশ ফোড়।

অনেক মানুষকে জিজ্ঞেস করলে উত্তর দেন রোগী দেখতে অথবা আত্মীয় বাড়ি যাচ্ছেন। যেতে চান কয়দিন পড়ে যান সবার আগে আপনার সুস্থতা জরুরী।

অনেকেই জানান নামাজে যাচ্ছি, যান খুব ভাল কিন্তু সামাজিক দূরত্ব মেনে ইবাদত বন্দেগী করা খুব জরুরী । ইতোমধ্যে যে নির্দেশনা ইসলামি ফাউন্ডেশন আপনাদের দিয়েছে তা মানছেন তো, রাষ্ট্রীয় আইন মানাও কিন্তু মুমিনের কর্তব্য।

অনেকই খেলাধুলা নিয়ে ব্যস্ত, খুব ভাল কথা তাই বলে দলে দলে শত মানুষ এক সাথে চায়ের দোকানে, মুদি দোকানে একসাথে আড্ডা আর ভাল লাগে না। প্লিজ প্লিজ একবার ভাবুন তো যেসব জায়গায় করোনা রোগী মারা গেছে সেখানে কিন্তু তাদের আত্মীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধব পাওয়া যায় নাই। আমার আপনার অবস্থা যদি সেরকম হয় আমাদের ক্ষেত্রেও তাই হবে।

নিজে ভাইরাস মুক্ত থাকেন অন্যকে বাচাতে সহায়তা করেন।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/৪ এপ্রিল ২০২০/এমএ/ডিজেএস

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন