আজ শনিবার, ০৬ জুন ২০২০ ইং

মিশিগানে স্টে হোমের বিরুদ্ধে ট্রাম্প পন্থীদের বিক্ষোভ

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০২০-০৪-১৬ ১০:৩৪:৩৭

তোফায়েল রেজা সোহেল, যুক্তরাষ্ট্র, মিশিগান থেকে :: মিশিগানের গভর্ণর গ্রেচেন হুইটমারের স্টে হোম আদেশের বিরুদ্ধে বুধবার ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। ‘অপারেশন গ্রিডলক’ নামের বিক্ষোভে যুক্তরাষ্ট্রে পতাকা হাতে দেখা যায় এবং অনেকের কাছে ব্যানার ছিল যাতে লেখা ছিল ‘মেইক আমেরিকা গ্রেট এগেইন’। এই স্লোগানটি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্বাচনী স্লোগান হিসেবেই পরিচিত।

বিক্ষোভকারীরা বলছেন, স্বাধীনতা ছাড়া নিরাপত্তা কারাগারের মতো। রাজধানী ল্যান্সিংয়ে আয়োজিত বিক্ষোভে গভর্ণর হু্টমারের আদেশের বিরুদ্ধে তারা নানা স্লোগান দেন।

রাজধানীতে দুপুরে এই বিক্ষোভ শুরু হয়। অনেক গাড়িও নিয়ম ভঙ্গ করে বিক্ষোভে অংশ নেয়। তারা বলছেন, স্টে হোম আদেশে গভর্ণর বেশি বাড়াবাড়ি করেছেন।

মিশিগান কনজারভেটিভ কোয়ালিশনের সংগঠক ম্যাট সেলি বলেছেন, "আমরা কোনো দলের নয়, নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি থেকেই রাস্তায় বেরিয়েছি। এটা রাজ্যের সব নাগরিকের দাবি।

মিশিগান রাজ্য পুলিশের দল শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়েছিল, তবে বিক্ষোভকারীরা বলেছে যে তারা নিরাপদ দূরত্বের নিয়ম মেনে চলবে এবং তারা যানবাহনের ভিতরেই থাকবে।

মিলফোর্ডের ব্যবসায় মালিক ম্যাসাভন ম্যাডক বলেছেন, "এর মাধ্যমে শ্রমিকদের আয়ের পথ বন্ধ হয়ে গেছে। কারণ ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ হয়ে গেছে। এটা একটা বিপরযয়। গভর্ণর নিজের দায়িত্বটি পালন করেছেন।

বিক্ষোভের কারণে ল্যান্সিং জুড়ে ট্র্যাফিক ব্যবস্থা ধীরগতির হয়। কারণ বিক্ষোভকারীরা রাস্তা জুড়ে করোনা ভাইরাসের  বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে রাস্তাগুলি অবরোধ করে। অপারেশন গ্রিডলকের অংশ হিসাবে আইনজীবিদের এবং গভর্নর গ্রেচেন হুইটমারের ভ্রমণ কমিয়ে দেওয়ার জন্য কয়েক ডজন যানবাহন ক্যাপিটাল কমপ্লেক্সের আশেপাশে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। গভর্ণরের বর্ধিত স্টে হোম, সেভ লাইফআদেশ সম্পর্কে বিক্ষোভকারীরা বিরক্ত, যা এপ্রিলের শেষের দিকে বাসিন্দাদের এবং ব্যবসায়গুলিতে নতুন বিধিনিষেধ সৃষ্টি করেছে।

হুইটমার বলেছেন যে, এই অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞাগুলি করোনভাইরাসের প্রসারকে কমিয়ে দিচ্ছে, অন্যরা বিশ্বাস করেন যে তারা খুব বেশি এগিয়ে গেছে।

মিশিগান কনজারভেটিভ কোয়ালিশন রাজধানীর বাইরে বুধবার বিক্ষোভের আয়োজন করেছিল। রিপাবলিকান আইন প্রণেতাদের পাশাপাশি সংগঠনটি মৃদু বিধিনিষেধের সন্ধান করছে যা আরও বেশি লোককে কাজে লাগিয়ে দেবে।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিসিন করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের মতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজ্যের মধ্যে ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় মিশিগান চতুর্থ স্থানে।

হুইটমার বুধবার সকালে বলেছিলেন, "মিশিগানে এই মুহূর্তে এই দেশে তৃতীয় বৃহত্তম কোভিড-১৯ আক্রান্ত রাজ্য। এই দুর্যোগও ভিন্ন।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১৬ এপ্রিল ২০২০/মিআচৌ

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন